‘ঈশ্বরের হাত’ যেন করোনামুক্তি ঘটায়, ম্যারাডোনার প্রার্থনা

‘ঈশ্বরের হাত’ যেন করোনামুক্তি ঘটায়, ম্যারাডোনার প্রার্থনা

‘ঈশ্বরের হাত’ যেন করোনামুক্তি ঘটায় সেটিই এখন চান ডিয়েগো ম্যারাডোনা করোনার এই দুঃসময় থেকে দ্রুতই মুক্তি চান ডিয়েগো ম্যারাডোনা। তাঁর চাওয়া থমকে যাওয়া অবস্থা থেকে আবারও প্রাণ চাঞ্চল্যে ফিরবে গোটা পৃথিবী। দূর হবে মানবঘাতী মহামারি। ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তির এসব প্রার্থনা ‘হ্যান্ড অব গডে’র কাছেই। ১৯৮৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হাত দিয়ে গোল করেছিলেন আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর। তুমুল বিতর্কিত সে গোলের পর ম্যারাডোনা সেটিকে ‘ঈশ্বরের হাত’ হিসেবে অভিহিত করেছিলেন।

ম্যারাডোনা এখন চান সেই ঈশ্বরের হাত যেন দ্রুতই পৃথিবী থেকে করোনা মহামারি দূর করে দেন, ‘কিন্তু আমি চাই, ঈশ্বরের সেই হাত যেন দ্রুতই এই মহামারির সমাপ্তি টানেন। মানুষ যেন তাঁর স্বাভাবিক কর্মব্যস্ত জীবনে ফিরে যেতে পারে।’নতুন করে ‘হ্যান্ড অব গড’ আলোচনায় আসার একটা ভিন্ন কারণ আছে। করোনার কারণে এবারের আর্জেন্টাইন ফুটবল মৌসুম বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। আর এ কারণেই লিগে রেলিগেশন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এই ব্যাপারটিকে অনেকেই ম্যারাডোনার জন্য ঈশ্বরের হাতের নতুন লীলা হিসেবে দেখছেন। কারণ আর্জেন্টাইন লিগে ম্যারাডোনার কোচিংয়ে এবার জিমনাসিয়ার অবস্থা ছিল পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে। মৌসুম শেষ হলে অবনমনের শঙ্কাটাই ছিল বেশি। ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সিদ্ধান্তে বড় বাঁচাই বেঁচে গেছেন ম্যারাডোনা। এ ব্যাপারে ম্যারাডোনার বক্তব্য খুব পরিস্কার, ‘অনেকেই আমাদের অবনমন এড়ানোর ঘটনাটিতে ঈশ্বরের হাতের লীলা হিসেবে দেখছেন। এখন আমি সেই হাতকে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আহ্বান করছি।’

Leave a Reply