যে ক্লাব রোনালদোকে কিনতে পারে কালই

যে ক্লাব রোনালদোকে কিনতে পারে কালই

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে কেনার সাধ্য বিশ্বের কোন কোন ক্লাবের আছে? এই আলোচনায় এসে পড়ল এক অপ্রত্যাশিত নাম বয়স হয়ে গেছে ৩৫। খেলার ধার একটুও কমেনি। এখনও জুভেটাস যদি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে বিক্রি করতে চায়, আগ্রহী ক্লাবের অভাব হবে না। কিন্তু আগ্রহ থাকলেই তো আর হয়না। রোনালদোর মতো খেলোয়াড়কে কেনার সামর্থ্যও থাকতে হয়। বিশ্বের কোন কোন ক্লাব রোনালদোকে কেনার সামর্থ্য রাখে? আলোচনায় আসতে পারে তাঁর দুই সাবেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নাম।

এই দুই ক্লাবের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ার কারণে সামর্থ্য থাকা সত্ত্বেও হয়তো রোনালদোর দিকে হাত বাড়াবে না বার্সেলোনা, ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুল। সামর্থ্য আছে পিএসজিরও। কিংবা চিনা ক্লাবগুলো? রেড বুল সালজবুর্গ? জানা গেছে, অস্ট্রিয়ার এই ক্লাবেরও সামর্থ্য আছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে কেনার। তা আবার যখন-তখন না। চাইলে আগামীকালই সালজবুর্গ রোনালদোকে কেনার সামর্থ্য রাখে, তাঁদের অর্থনৈতিক শক্তি এতটাই বেশি।

এমনটাই দাবি করেছেন সালজবুর্গে খেলা সাবেক জার্মান মিডফিল্ডার অলিভার ক্রাল। এনার্জি ড্রিঙ্ক কোম্পানি ‘রেড বুল’ বেশ কয়েক বছর ধরেই ফুটবলে বিনিয়োগ করছে। এর মধ্যে বিভিন্ন দেশে রেড বুলের অর্থায়নে চলছে বেশ কিছু ক্লাব। এদের মধ্যে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার রেড বুল সালজবুর্গ, অস্ট্রিয়ার র‍্যাসেনবলস্পোর্ত লাইপজিগ, যুক্তরাষ্ট্রের নিয় ইয়র্ক রেড বুলস, ব্রাজিলের রেড বুল ব্রাজিল, ঘানায় রেড বুল ঘানা প্রমুখ। প্রতিটি ক্লাবই নিজ নিজ দেশে বেশ সফল। রেড বুল সালজবুর্গই যেমন।

২০০৫ সালে রেড বুলের কাছে মালিকানা বিক্রি হওয়ার পর এই ক্লাবটা অস্ট্রিয়ার অন্যতম পরাশক্তিতে পরিণত হয়েছে। মালিকানা পরিবর্তনের পর লিগ জিতেছে দশবার, কাপ জিতেছে ছয়বার, উয়েফা যুব লীগে সাফল্য পেয়েছে একবার। সে সাফল্যের ওপর ভিত্তি করে তাঁরা চাইলেই রোনালদোকে কিনতে পারে বলে জানিয়েছেন ক্রাল, ‘আমার মতে সালজবুর্গ চাইলে কালকেই রোনালদোকে কিনতে পারে। ওদের সেই সামর্থ্য আছে। শুধু তাই নয়, অস্ট্রিয়ার লিগে না খেলে তাঁরা যদি জার্মান বুন্দেসলিগাতেও খেলত, তাও ভালো করতে পারত।’

Leave a Reply